H2

অপারেশনের আগে যে পরীক্ষা গুলি অবশ্যই করতে হয়। Tests done before Operation in bangla

অপারেশনের_আগে_যে_পরীক্ষা_গুলি_অবশ্যই_করতে_হয়
Picture source : flickr.com

অপারেশনের আগে যে পরীক্ষা গুলি

ডাক্তার অর্থাৎ সার্জন রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করার আগে বেশ কিছু রুটিন ল্যাব টেস্টের এডভাইস দিয়ে থাকেন। এই জাতীয় পরীক্ষাগুলি সম্ভাব্য সমস্যাগুলি খুঁজে পেতে সাহায্য করে। আর এই জাতীয় সমস্যা গুলি সঠিক ভাবে পর্যালোচনা না করলে অপারেশনের বা সার্জারির সময়ে জটিল সমস্যা তৈরী করতে পারে। 

তাই অস্ত্রোপচারের আগে এই ধরণের সাধারণ পরীক্ষা গুলি অত্যন্ত প্রয়োজন রোগীর শারীরিক পরিস্থিতি জানার জন্য।


যে পরীক্ষা গুলি করা হয় 

বুকের এক্স-রে (Chest X-Ray)

এক্স-রে শ্বাসকষ্ট, বুকে ব্যথা, কাশি এবং নির্দিষ্ট জ্বরের কারণ নির্ণয় করতে সাহায্য করতে পারে। তারা অস্বাভাবিক শ্বাস জনিত সমস্যা, ফুসফুস এর সমস্যা এমনকি হার্টের বিভিন্ন সমস্যা চিহ্নিত করতে পারে।


ইলেক্ট্রোকার্ডিওগ্রাম (ECG)

এই পরীক্ষাটি হৃৎপিণ্ডের বৈদ্যুতিক কার্যকলাপ রেকর্ড করে যেকোনো অস্বাভাবিকতা খুঁজে বের করে (অ্যারিথমিয়াস বা ডিসরিথমিয়াস)। 

এছাড়াও বুকে ব্যাথার কারণ বা হৃৎপিণ্ডের পেশীর ক্ষতির সম্ভাবনা থাকলে তার সন্ধান করে।


কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় :  


এন্ডোস্কোপির প্রয়োজনীয়তা, খরচ, সময় ও অন্যান্য বিষয়ে জানুন


মাথার সিটি স্ক্যান এর প্রয়োজনীয়তা


লিভার ফাংশন টেস্ট এর প্রয়োজনীয়তা, খরচ এবং অন্যান্য বিষয়


সিটি স্ক্যান এবং এমআরআই এর পার্থক্য


পি ই টি স্ক্যান করার প্রয়োজন, পদ্ধতি, খরচ, সময় এবং অন্যান্য


ইউরিনালাইসিস (Urinalysis)

এই পরীক্ষা কিডনি এবং মূত্রাশয় সংক্রমণ সংক্রান্ত সমস্যা জানতে সাহায্য করে। বিশেষ ক্ষেত্রে এটি মূত্র বিশ্লেষণের মাধ্যমে সমস্যা চিহ্নিত করে।


হোয়াইট ব্লাড কাউন্ট (WBC)

এই পরীক্ষা নির্দিষ্ট জ্বর এবং সংক্রমণ নির্ণয় করতে সাহায্য করতে পারে। এছাড়াও জানতে পারে যে নির্দিষ্ট কোনো ওষুধ ব্যবহার করে সাদা রক্তের সংখ্যাকে প্রভাবিত করছে কিনা।


গ্লুকোজ (Glucose) 

এই পরীক্ষায় রোগীর রক্তে শর্করার মাত্রা কেমন আছে তা নির্ণয় করে। যেটা অপারেশনের আগে জেনে নেওয়া অত্যন্ত জরুরি। 


পটাসিয়াম (Potassium blood test) 

এই পরীক্ষাটি রোগীর রক্তে পটাসিয়াম, সোডিয়াম এবং অন্যান্য ইলেক্ট্রোলাইটের পরিমাণ কেমন আছে তা পরিমাপ করে। এই রাসায়নিকগুলি হার্ট ও শরীরের বিভিন্ন ক্রিয়াকলাপ নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে।


কমপ্লিট ব্লাড কাউন্ট (CBC)

এই পরীক্ষাটি কম সংখ্যক লাল রক্তকণিকা (বিশেষত অ্যানিমিয়ার সমস্যা দেখার জন্য) এবং সংক্রমণ আছে কিনা জানার জন্য। 


কোন্গুলেশন স্টাডিজ (PT/PTT)

রক্ত ​​​​জমাট বাঁধার প্রক্রিয়া কতটা ভাল তা জানার জন্য এই পরীক্ষাটি বাঞ্ছনীয়।


কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় :












মনে রাখবেন 

প্রক্রিয়া চলাকালীন আপনার নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য বিশেষ কিছু পরীক্ষা করা হয়ে থাকে। যেমন রোগীর কিডনির সমস্যা থাকলে প্রস্রাব বিশ্লেষণের পরীক্ষার প্রয়োজন হতে পারে, ডায়াবেটিসের ঝুঁকি থাকলে গ্লুকোজ পরীক্ষার করতে হবে, রক্ত ​​​​জমাট বাঁধা জাতীয় সমস্যা আছে কিনা জানার জন্যেও নির্দিষ্ট পরীক্ষার (হেমাটোলজিস্টের পরামর্শ নেওয়া) প্রয়োজন হয়। 

এছাড়াও, অবস্ট্রাকটিভ স্লিপ অ্যাপনিয়া অর্থাৎ ঘুমের সমস্যা আছে কিনা তা নিশ্চিত করার জন্য অতিরিক্ত পরীক্ষার প্রয়োজন হতে পারে।

অর্থাৎ নির্দিষ্ট ধরণের অপারেশনের জন্য নির্দিষ্ট কিছু পরীক্ষার প্রয়োজন হয়। যেমন পেট বা কোলন সার্জারির জন্য ডাক্তারের আপনাকে কোলনোস্কোপি পরীক্ষা করতে বলবেন এর সাথে সিটি স্ক্যান বা এমআরআই স্ক্যানের প্রয়োজন হতেও পারে। এই নির্দিষ্ট করা পরীক্ষা গুলি নিশ্চিত করবে যে আপনি সম্পূর্ণভাবে তৈরী অপারেশনের জন্য।

যদি আজকের আলোচনা (অপারেশনের আগে যে পরীক্ষা গুলি অবশ্যই করতে হয়। Tests done before Operation in bangla) থেকে আপনার কিছুমাত্র উপকার হয় তবে অবশ্যই প্রিয়জনদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমরা এখন ইউটিউবে আছি, সার্চ করুন SACHETAN JIBAN
 

বি: দ্রঃ এই লেখাটি কেবল সাস্থ্য সুরক্ষা ও সচেততামূলক তথ্য সরবরাহ করে মাত্র। এটি কোনওভাবেই যোগ্য চিকিৎসার মতামতের বিকল্প নয়। আরও তথ্যের জন্য সর্বদা বিশেষজ্ঞ বা আপনার নিজস্ব চিকিৎসকের সাথে পরামর্শ করুন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ

H2